মধু ত্বকের দাগ কমায়

বহুকাল আগে থেকেই মুখের যত্নে, চুলের যত্নে, এমনকি শরীরের যত্নে মধুর ব্যবহার হয়ে আসছে। শীত মৌসুমে অতিরিক্ত ঠাণ্ডার হাত থেকে বাঁচার জন্য মধু খাওয়া হয়, মধু শরীরে তাপমাত্রা বাড়িয়ে গরম ধরায়। শুধু তাই নয়, রূপ চর্চাতেও মধু যথেষ্ট উপকারী।

মুখের ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতেও, চুলের রঙ গাড় করতে, চুল মজবুত করতে মধুর গুরুত্ব অপরিসীম। তবে, মুখের দাগ দূর করতেও মধুর যাদুকরী ভূমিকা রয়েছে। বাজারে পাওয়া যায় এমন সকল দামি যে কোন দাগ দূর করার প্রসাধনীর থেকে মধু খুব বেশি কাজ করে। মধুতে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়া ত্বকের যে কোন দাগকে অনেকটাই কমিয়ে আনে।

তবে অনেক বড় কোনো ক্ষতের দাগ মধু দূর করতে সক্ষম নয়। কিন্তু ছোট যে কোনো দাগ যেমন ব্রণের দাগ মধু ব্যবহারে কমে যাওয়া সম্ভব।

বহুকাল আগে থেকেই মুখের যত্নে, চুলের যত্নে, এমনকি শরীরের যত্নে মধুর ব্যবহার হয়ে আসছে। শীত মৌসুমে অতিরিক্ত ঠাণ্ডার হাত থেকে বাঁচার জন্য মধু খাওয়া হয়, মধু শরীরে তাপমাত্রা বাড়িয়ে গরম ধরায়। শুধু তাই নয়, রূপ চর্চাতেও মধু যথেষ্ট উপকারী।

মুখের ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতেও, চুলের রঙ গাড় করতে, চুল মজবুত করতে মধুর গুরুত্ব অপরিসীম। তবে, মুখের দাগ দূর করতেও মধুর যাদুকরী ভূমিকা রয়েছে। বাজারে পাওয়া যায় এমন সকল দামি যে কোন দাগ দূর করার প্রসাধনীর থেকে মধু খুব বেশি কাজ করে। মধুতে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়া ত্বকের যে কোন দাগকে অনেকটাই কমিয়ে আনে।

তবে অনেক বড় কোনো ক্ষতের দাগ মধু দূর করতে সক্ষম নয়। কিন্তু ছোট যে কোনো দাগ যেমন ব্রণের দাগ মধু ব্যবহারে কমে যাওয়া সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *