করোনায় সাংবাদিকের মৃত্যু: বৈশ্বিক তালিকার ৬ নম্বরে বাংলাদেশ।

বৈশ্বিক মহামারি করোনার হানায় বিভিন্ন দেশে এই পর্যন্ত এক হাজার ৬০ জন সাংবাদিক মারা যাওয়ার তথ্য প্রকাশ করেছে জেনেভা ভিত্তিক এনজিও প্রেস এমব্লেম ক্যাম্পেইন (পিইসি)। মারা যাওয়া সাংবাদিকদের সংখ্যার বিচারে তালিকার ছয় নম্বরে আছে বাংলাদেশ।

জেনেভা ভিত্তিক এনজিও প্রেস এমব্লেম ক্যাম্পেইন (পিইসি) গত বছরের ১ মার্চ থেকে এই বছরের ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্বের ৭৪টি দেশে করোনায় মারা যাওয়া সাংবাদিকদের তালিকা তৈরির এই জরিপ চালায়। সংস্থাটির এই জারিপে তালিকার ষষ্ঠ স্থানে থাকা বাংলাদেশে উল্লেখিত সময়ে মারা গেছেন কমপক্ষে ৪৮ জন সাংবাদিক। সংক্রমণের ঝুঁকি নিয়ে সংবাদ সংগ্রহ

পিইসি’র জরিপ বিশ্লেষণে দেখা গেছে, করোনায় মারা যাওয়া এই সাংবাদিকদের অর্ধেকই ল্যাটিন আমেরিকার বিভিন্ন দেশের। এই অঞ্চলের ১৯টি দেশে এই পর্যন্ত মারা  গেছেন ৬১১ জন সাংবাদিক। অন্যদিকে, এশিয়া অঞ্চলের ১৮ দেশে মারা গেছেন ১৮৩ জন সাংবাদিক। জরিপের ভিত্তিতে তৈরি গ্রাফ

তালিকার শুরুর দিকে থাকা তিনটি দেশই ল্যাটিন আমেরিকার। দেশগুলো হচ্ছে ব্রাজিল (১৭২ জন), পেরু (১৩৮ জন) এবং মেক্সিকো (৯৩ জন)। তালিকার চতুর্থ স্থানে থাকা ভারতে মারা গেছেন ৬৩ জন সাংবাদিক। এছাড়া তালিকার সপ্তম স্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে মারা গেছেন কমপক্ষে ৪৭ জন গণমাধ্যম কর্মী।পিইসি মহাসচিব ব্লেইজ লেম্পেন

পিইসির মহাসচিব ব্লেইজ লেম্পেন বলেন, ‘এমন পরিস্থিতিতে সাংবাদিকদের দ্রুত টিকাদান কর্মসূচির আওতায় আনা উচিত, যাতে মাঠপর্যায়ে তারা জীবন বিপন্ন না করেই নিজেদের কাজগুলো করে যেতে পারেন।’

বিভিন্ন দেশে অবস্থিত সাংবাদিকদের জাতীয় সংগঠন, স্থানীয় গণমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং পিইসি’র স্থানীয় প্রতিনিধিদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এই জরিপের ফলাফল তৈরি করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *