মুক্তিপণ আদায় করতে না পারায় মাদ্রাসা ছাত্র  হত্যা

মুক্তিপণের ১০ লাখ টাকা না দেওয়ার অপরাধে আরাফাত (১১) নামে এক মাদরাসা ছাত্রকে হত্যা করেছে অপহরণকারীরা।

এরঅ চারদিন পর গ্রামের জয়নাল মোল্যার বাঁশবাগানে তার মরদেহ পাওয়া যায়।

নিহত শিশু বোড়ামার গ্রামের ওবাইদুর শিকদারের ছেলে। সে পেড়লী দাখিল মাদরাসায় পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ত।  

গত শনিবার (১২ মার্চ) সকালে বাড়ি থেকে হঠাৎ করে শিশুটি নিখোঁজ হয়। এরপর পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তার 
সন্ধান না পাওয়ায় ওইদিনই সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। রোববার সকালে একটি ফোন নম্বর থেকে পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। কিন্তু স্বজনরা টাকা দিতে পারেননি। এর মধ্যে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) সেই মোবাইল ফোন নম্বর ট্র্যাক করে সোমবার রাতে অপহারণকারীদের সন্ধান পায়।

নিহত শিশুর বাবা ওবাইদুর শিকদার কাচেরদেয়ালকে বলেন, অপহারণকারীরা ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিল। টাকা না দেওয়ায় আমার ছেলেকে তারা হত্যা করেছে।



পিবিআই ইন্সপেক্টর মো. শামিম কাচেরদেয়ালকে জানান, আটক দু’জনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.